বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮, ০৪:৩২ অপরাহ্ন




অধ্যক্ষ জাকিয়ার প্রধান অস্ত্র ইভটিজিং

অধ্যক্ষ জাকিয়ার প্রধান অস্ত্র ইভটিজিং




সাব্বির হোসাইন আজিজ, মাদারীপুর : মাদারীপুর সরকারি শেখ হাসিনা একাডেমি এন্ড উইমেন্স কলেজের অধ্যক্ষ জাকিয়া সুলতানার মতের বিরুদ্ধে গেলেই বিভিন্ন পেশাজীবীদের ইভটিজিংএর অভিযোগ এনে হয়রানি করেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তার হয়রানি থেকে রক্ষা পাচ্ছে না পুলিশ, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী কেউই। তার মতের বিরুদ্ধে গেলেই তিনি ইভটিজিংএর মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেন। ইভটিজিংএর অভিযোগ যেন অধ্যক্ষ জাকিয়ার প্রধান অ¯্র তাই কলেজের ছাত্রীদের তিনি ব্যবহার করেন অপরাধ ঢাকার ঢাল হিসেবে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, বেশ কয়েক মাস আগে সরকারি শেখ হাসিনা একাডেমি এন্ড উইমেন্স কলেজের ডাইনিংএ মরা মুরগি খাওয়ানোর অভিযোগ উঠে। এসময় বিভিন্ন গণমাধ্যমে এসংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশ হয়। সেই সংবাদ ফেসবুকে শেয়ার করেন ডাসার এলাকার কম্পিউটার দোকানদার মো.পারভেজ। এতেই ক্ষিপ্ত হয় জাকিয়া সুলতানা। তার কলেজের ছাত্রী আছিয়া জাহান লিয়াকে দিয়ে ইভটিজিং এর একটি অভিযোগ দায়ের করে ডাসার থানায়। পরে পুলিশ পারভেজকে তার দোকান থেকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এর পরে লোক লজ্জায় পারভেজ ডাসারে ব্যবসা ছেড়ে পাড়ি জমায় ঢাকায়।

এব্যাপারে পারভেজ জানান, আমি ফেসবুকে কলেজের ডাইনিংএ মরা মুরগি খাওয়ানোর নিউজ শেয়ার করেছিলাম। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে আমাকে হয়রানি করেছে জাকিয়া সুলাতানা এবং তার ছাত্রী আছিয়া জাহান লিয়া। আমি লোক লজ্জায় ব্যবসা ছেড়ে এখন ঢাকায় চলে আসছি। আমি কলেজের অধ্যাক্ষ জাকিয়া এবং কলেজ ছাত্রী আছিয়া জাহান লিয়া বিচার চাই। যাতে আগামীতে কেউ যেন মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে কাউকে হয়রানি করতে না পারে। সংশ্লিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, কলেজের অধ্যক্ষ জাকিয়ার কথা মত কাজ না করায় ডাসার থানার এক পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধেও ইভটিজিং এর অভিযোগ এনেছেন। ‘স’ অদ্যাক্ষরের ওই পুলিশ সদস্যর বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলে তিনিও লোক লজ্জার ভয়ে ডাসার থানা থেকে পোষ্টিং নিয়ে অন্য থানায় চলে আসেন। এছাড়াও গত সোমবার কলেজের পরীক্ষা চলাকালে নিয়মভঙ্গ করেন জাকিয়া সুলতানা। সোমাবর অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় ডাসার সরকারি শেখ হাসিনা একাডেমি এন্ড উইমেন্স কলেজের পরীক্ষার কেন্দ্র ছিলো ডিকে আইডিয়াল আতাহার আলি কলেজ কেন্দ্রে। পরীক্ষা চলাকালে ডাসার সরকারি শেখ হাসিনা একাডেমি এন্ড উইমেন্স কলেজের অধ্যক্ষ জাকিয়া সুলতানা এবং একই কলেজের শিক্ষিকা মার্জিয়া আক্তার নিয়ম ভঙ্গ করে ডিকে আইডিয়াল আতাহার আলি কলেজ কেন্দ্রে প্রবেশ করে। এসংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশ করায় এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধেও ইভটিংিএর অভিযোগ করান তার ছাত্রী আছিয়া জাহান লিয়াকে দিয়ে। একাধিক সূত্রে জানা গেছে, তার কলেজের ছাত্রী আছিয়াসহ একটি গ্রুপ রয়েছে। যাদের দিয়ে তিনি বিভিন্ন ব্যক্তিকে হয়রানির কাজে ব্যবহার করেন। বিষয়টি নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে সমালোচনার ঝড় বইছে।

বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম মাদারীপুর জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক সাব্বির হোসাইন আজিজ বলেন, অধ্যক্ষ জাকিয়া সুলাতানা আইন ভঙ্গ করে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করেছেন। তিনি প্রায় প্রতিবছরই এরকম আইন ভঙ্গ করে থাকেন। তার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিকদের মানসম্মান ক্ষুন্ন করার উদ্যেশ্যে ছাত্রীদের ব্যবহার করে। এর আগেও বিভিন্ন সময় নিরিহ সাধারন মানুষকে ইভটিজিংএর অভিযোগ এনে হয়রানি করেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

জাকিয়া সুলতানা মুল ঘটনাকে ভিন্নখাটে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছেন। এই ঘটনায় জড়িত জাকিয়া সুলতানাসহ জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি। জাকিয়া সুলতানা মিথ্যা অভিযোগ এনে সাংবাদিকদের কন্ঠরোধের চেষ্টা করছেন। জাকিয়ার শাস্তি না হলে আমরা আগামীতে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম দেশ ব্যাপি কঠোর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হব।

মাদারীপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সিনিয়র সাংবাদিক গোলাম মাওলা আকন্দ বলেন, জাকিয়া সুলাতানা আইন ভঙ্গ করে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করেছেন। তিনি প্রায় প্রতিবছরই এরকম ভাবে আইন ভঙ্গ করে থাকেন। তার বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিকদের মানসম্মান ক্ষুন্ন করার উদ্যেশ্যে ছাত্রীদের ব্যবহার করে মুল ঘটনাকে ভিন্নখাটে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছেন। জাকিয়া সুলতানা মিথ্যা অভিযোগ এনে সাংবাদিকদের কন্ঠরোধের চেষ্টা করছেন।

এব্যপারে সরকারি শেখ হাসিনা একাডেমি এন্ড উইমেন্স কলেজের অধ্যক্ষ জাকিয়া সুলতানার
মোবাইলে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিফ করেননি।

এব্যাপারে জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম কাছে জনতে চাইলে তিনি বলেন, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ বা স্বারকলিপির ব্যাপারে কিছুই জানিনা। যেহেতু আমি ঐ কলেজের সভাপতি তাই কিছু করার আগে আমাকে অবহিত করতে হবে। কিন্তু কেন আমাকে জানানো হয়নি সে বিষয়য়ে আমি জানি না। আমি বিষয়টি খোঁজখবর নিয়ে দেখব এবং কোন অনিয়ম হয়ে থাকলে ব্যবস্থা নিব।

খবরটি শেয়ার করুন..











© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com