শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৮, ০২:২১ অপরাহ্ন




ভালুকায় শতকোটি টাকার বনভূমি অবৈধ দখলে

ভালুকায় শতকোটি টাকার বনভূমি অবৈধ দখলে




আরিফুল ইসলাম, ভালুকা প্রতিনিধি: ভালুকায় শতকোটি টাকার বনভূমী অবৈধ দখলে। ভালুকা রেঞ্জের হবিরবাড়ী বিটের বিভিন্ন দাগে বনবিজ্ঞপ্তিত জমি উপর বহুতল ভবন সহ, শতাদিক পাকাবাড়ি নির্মাণ হচ্ছে অসাধু বন কর্মকর্তাদের যোগ সাজসেই।

সরজমিনে দেখা যায়, হবিরবাড়ী মৌজার ও বিভিন্ন দাগের বনবিজ্ঞপ্তিত জমি জবর দখল করে বহুতল ভবন ও পাকাবাড়ি নির্মাণ করছে। হবিরবাড়ী মৌজার ৮৭ নং দাগে শিউলী আক্তার ৬টি রুমের একটি পাকাবাড়ি নির্মান করছে, ১৭০ নং দাগে বহুতল ভবন সহ প্রায় ৬০টি রুমের পাকাবাড়ি নির্মান হচ্ছে, মো. সূরুজ ঢালী, একই দাগে ৪০টি রুমের বাসা নির্মান করছে, আব্দুল মোতালেব, পিতা মৃত ছফির উদ্দিন, সুলতান মিয়া, শরিফ মিয়া, জজমিয়া, জাকির হোসেন, সোহেল সর্ব পিতা-মোঃ আবুল কশেম।

১৫৪ নং দাগে ইব্রাহিম (দালাল ইব্রাহিম) বাউন্ডারি দিয়ে দখল করছে বনবিভাগের জমি, ১৮৫নং দাগে একাদিক পাকা বাড়ি নির্মান হচ্ছে, ১৯ নং দাগে নির্মান হচ্ছে একাদিক পাকা বাড়ি, মনোহরপুর মৌজায় ২১৮ নং দাগে মেজর (অবঃ) জুলফিকার বনবিজ্ঞপ্তিত ২০ বিঘা বনভুমি দখল করে তৈরী করেছেন বিশাল বাগান বাড়ি এখনও নির্মান কাজ চলমান।

হবিরবাড়ী মৌজার ৯ নং দাগে বহুতল ভবন তৈরী করছে নুরুল ইসলাম (অবঃ সেনা সদস্য), তাইজ উদ্দিন, খোরশেদ তালুকদার সহ শতাধিক পাকাবাড়ি নির্মান হচ্ছে যা দেখার কেউ নেই। এভাবেই ভালুকা রেঞ্জের হবিরবাড়ি বিটের আওতাধীন বিভিন্ন দাগের বনবিজ্ঞপ্তিত জমি জবরদখল হয়ে যাচ্ছে। স্থানীয় বনকর্মকর্তাদের রহস্যজনক নীরবতায় প্রায় প্রতিদিন বনভূমি দখল করে নিচ্ছে শিল্পপতিসহ ভূমি দস্যুরা।

হবিরবাড়ী বিট কর্মকর্তা হাফিজ উদ্দিন জানান এসব দাগে যারা জবর দখল করেছে খোজ নিয়ে খুব শিঘ্রই আইন গত ব্যবস্থা নেয়া হবে। অসাধু বন কর্মকর্তাদের যোগসাজসে এভাবেই সরকারের শতকোটি টাকার সম্পদ ধ্বংস হয়ে বিলিন হয়ে যাচ্ছে বনভূমি বলে সচেতন মহলের অভিযোগ।

খবরটি শেয়ার করুন..











© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com