বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ০৩:৪৩ পূর্বাহ্ন



রাজনীতির বলি মায়ের কোলের শিশু

রাজনীতির বলি মায়ের কোলের শিশু



মো: আবদুল মন্নান, হাতিয়া প্রতিনিধি : হাতিয়ায় চাঁদার দাবীতে আ’লীগের এক নেতার বাড়ীতে হামলা করেছে স্থানীয় সাংসদের সমর্থিত সন্ত্রাসীরা। ঘটনাস্থলে ৫ম শ্রেণীতে পড়–য়া মাদ্রাসার এক ছাত্র গুলিবিদ্ধ হয়েছে। গুলিবিদ্ধ ছাত্র মোঃ নিরব উদ্দিনকে প্রত্যক্ষদর্শীরা ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে হাতিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করে।

পরে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎক তার অবস্থার অবনতি দেখলে তাকে দ্রুত নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে। এদিকে রাত ১১টার সময়  নোয়াখালীতে আসতে নদী পথে গুলিবিদ্ধ ছাত্র নিরব উদ্দিন মারা যায় বলে নিশ্চিত করেছে নিহতের চাচা রাশেদুল ইসলাম নান্টু। নিহত নিরব উদ্দিন (১০) হাতিয়া পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মোঃ মিরাজ উদ্দিনের ছেলে।

সে রহমানিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ৫ম শ্রেণীর ছাত্র। অপর আহতরা হলো- পৌর আ’লীগের নেতা মিরাজ উদ্দিন, রাশেদুলইসলাম নান্টু, শাহাদাত হোসেন। ঘটনাটি ঘটেছে আজ রবিবার রাত ৮ টার সময় নোয়াখালীর হাতিয়া পৌরসভার ৪ নং খবির মিয়া বাজার এলাকায়। স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী কালাম, খোকন, মাইনুদ্দিন, সোহেল, জাফর উদ্দিনসহ আরো অনেকে জানায়, স্থানীয় এমপি আয়েশা ফেরদৌসের সমর্থিত সন্ত্রাসী ও একাধিক হত্যা মামলার আসামী মহিউদ্দিন মুহিন ডাকাত, গুল আজাদ বাহিনী, আবু তাহের ডাকাত, মোশফেকুর রহমান জিন্নুর ডাকাত, বেচু ডাকাত, গালিব ডাকাত, শাহাদাত ডাকাত, জাহাঙ্গীর ডাকাত ও অপরাপর ১৫/২০ সন্ত্রাসীরা  গত কয়েকদিন ধরে স্থানীয় ব্যবসায়ী ও পৌর আ’লীগ নেতা রাাশেদুল ইসলাম নান্টু, মিরাজ উদ্দিন থেকে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে আসছে।

তারা সন্ত্রাসীদের দাবীকৃত চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে আজ রাত ৮ টার সময় সঙ্গবদ্ধ সন্ত্রাসীরা শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর আ’লীগ নেতা রাশেদুল ইসলাম নান্টুর বাড়িতে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে এলোপাতাড়ী শুলি করা শুরু করে। এ সময় বাড়িতে থাকা আ’লীগ নেতা মিরাজ উদ্দিন ও তার ছেলে নিরব উদ্দিন গুলিবিদ্ধ হয়। এছাড়াও রাশেদুল ইসলাম নান্টু, ও শাহাদাত হোসেনকে দেশীও অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ী কুপিয়ে জখম করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে স্থানীয় পুলিশ পৌছলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।পরে আমরা মিরাজ উদ্দিন ও তার ছেলে নিরবকে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এদিকে হাতিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামান শিকদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, স্থানীয় সন্ত্রাসী  মোশফেকুর রহমান জিন্নুর ডাকাত, বেচু ডাকাত, গুল আজাদ বাহিনী, আবু তাহের ডাকাত, গালিব ডাকাত, শাহাদাত ডাকাতসহ ১০/১৫ জন সন্ত্রাসী একত্রিত হয়ে নান্টুর বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় নান্টুর ভাই মিরাজ উদ্দিন ও তার ছেলে নিরব গুলিবিদ্ধ হয়। নিরবের অবস্থার অবনতি হলে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। গুলিবিদ্ধ নিরব মারা গেছে । আমরা আহতদেরকে ঘটনাস্থল থেকে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে আসি। এ ঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

খবরটি শেয়ার করুন..








© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com
Desing & Developed BY W3Space.net