সোমবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৮, ১১:১৫ অপরাহ্ন




না ফেরার দেশে হাত হারানো রাজীব

না ফেরার দেশে হাত হারানো রাজীব




অনলাইন ডেস্ক : দুই বাসের মধ্যে পড়ে একটি হাত হারানো রাজীব হোসেন মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্নইলাহি রাজিউন)। সোমবার দিনগত রাত ১২টা ৪০ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল আইসিইউ’র চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আইসিইউ’র চিকিৎসক ডা. রেজার বরাত দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছেন রাজীবের খালা জাহানারা বেগম। ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির এসআই বাচ্চু মিয়াও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার বাঁশবাড়ি গ্রামের রাজীব তৃতীয় শ্রেণিতে থাকাকালে মাকে এবং অষ্টম শ্রেণিতে থাকাকালে বাবাকে হারান। এরপর মতিঝিলে খালা জাহানারা বেগমের বাসায় থেকে এসএসসি ও এইচএসসি পাস করেন। মহাখালীর তিতুমীর কলেজে স্নাতকে ভর্তি হওয়ার পর যাত্রাবাড়ীতে মেসে ভাড়ায় থেকে পড়াশোনা করছিলেন রাজীব। এর পাশাপাশি তিনি একটি কম্পিউটারের দোকানেও কাজ করছিলেন। নিজের পড়াশোনার পাশাপাশি ছোট দুই ভাইয়ের খরচও চালাতে হতো রাজীবকে।

গত ৩ এপ্রিল কারওয়ান বাজারে বিআরটিসি ও স্বজন পরিবহনের রেষারেষিতে বিআরটিসির যাত্রী রাজীবের ডান কনুইয়ের ওপর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তার মাথার সামনে-পেছনের হাড় ভেঙে যাওয়া ছাড়াও মস্তিষ্কের সামনের দিকে আঘাত লাগে। শমরিতা হাসপাতাল থেকে পরদিনই রাজীবকে নেয়া হয়েছিল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে; অবস্থার অবনতি ঘটলে এক সপ্তাহ আগে তাকে নেয়া হয়েছিল লাইফ সাপোটে।

রাজীব হোসেনকে দেখতে হাসপাতালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম প্রথমে পান্থপথের শমরিতা হাসপাতালে নেয়া হলেও সেখান থেকে পরে তাকে ভর্তি করা হয় ঢাকা মেডিকেলে। তার চিকিৎসার জন্য গঠন করা হয় মেডিকেল বোর্ড।

খবরটি শেয়ার করুন..











© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com