September 21, 2018, 6:24 pm

শিরোনাম :
চুনারুঘাটে সাব-রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে ঘুষ-দুর্নীতির অভিযোগ দুদকের তদন্ত শুরু, বেরিয়ে আসছে অজানা কাহিনী সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে নবাগত পুলিশ সুপার হবিগঞ্জকে সুশৃংখল জেলায় রূপান্তর করতে সক্ষম হব আইসিবির ৫ কর্মকর্তাসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে ১২ মামলা ‘সরকারের চাপে পদত্যাগ ও নির্বাসিত হতে বাধ্য হয়েছি’ আপত্তি সত্বেও সংসদে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাস যুগ্মসচিব পদে পদোন্নতির সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কারও মান-অভিমান ভাঙানোর ইচ্ছে নেই: প্রধানমন্ত্রী সাভারে পুলিশ সোর্স নয়নকে পিটিয়ে হাত-পা ভাঙ্গলো সন্ত্রাসীরা শ্রীপুরে বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিক বিক্ষোভ প্রতিবন্ধী কোটা রাখতে সংসদীয় কমিটির সুপারিশ



সাইবার হামলার আশঙ্কায় সব ব্যাংকে সতর্কতা জারি

সাইবার হামলার আশঙ্কায় সব ব্যাংকে সতর্কতা জারি

Hacker typing on a laptop






সংবাদ ডেস্ক : যেকোনও সময় সাইবার হামলা হতে পারে। এমন আশঙ্কায় দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংককে সতর্ক থাকতে নির্দেশ জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বৃহস্পতিবার (১৬ আগস্ট) সম্ভাব্য এই সাইবার হামলা নিয়ে দেশের সব ব্যাংকের জন্য সতর্কতা জারি করে বার্তা পাঠানো হয়েছে। সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছে সতর্কবার্তা পাঠানো হয়।

সতর্কতায় বলা হয়েছে, ‘গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে প্রতিবেশী দেশের বিভিন্ন ব্যাংক থেকে হ্যাকারেরা বড় অংকের অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে। হ্যাকারেরা সেই দেশের ভেতর ও বাইরে অবস্থান করে পেমেন্ট সিস্টেমে ঢুকে অর্থ হাতিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছে।’

আরও বলা হয়, ‘বাংলাদেশ উদীয়মান অর্থনীতির দেশ। তাই এই দেশেও এমন সাইবার হামলার আশঙ্কা রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সব ব্যাংককে এর আগে সাইবার হামলা ঠেকাতে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পাঠানো নির্দেশনাগুলো অনুসরণ করার জন্য বলা হচ্ছে।’

‘সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ে নিবিড় তদারকি নিশ্চিত করার মাধ্যমে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করতে বিশেষভাবে অনুরোধ করা যাচ্ছে। বিষয়টি সর্বাধিক গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করতে হবে।’

হ্যাকারেরা ভারতের পুনেভিত্তিক কসমস ব্যাংক থেকে গত ১১ থেকে ১৩ আগস্টের মধ্যে ৯৪ কোটিরও বেশি রুপি হাতিয়ে নিয়েছে। ভিসা ও রুপে ক্রেডিট কার্ড ক্লোন করে এই অর্থ হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব থেকে ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি হয়। এর মধ্যে ২ কোটি ডলার চলে যায় শ্রীলঙ্কা ও ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চলে যায় ফিলিপাইনে। এরই মধ্যে মাত্র এক কোটি ৪৫ লাখ ডলার ফেরত পেয়েছে বাংলাদেশ। তবে ঘটনার প্রায় আড়াই বছর পার হয়ে গেলেও বাকি টাকা এখনো উদ্ধার হয়নি।

খবরটি শেয়ার করুন..


Loading…






© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com