শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:২০ অপরাহ্ন



পোশাক রপ্তানি করে ভারতে ৮৭ কোটি ডলার আয়

পোশাক রপ্তানি করে ভারতে ৮৭ কোটি ডলার আয়



দেশের পোশাক রপ্তানি খাতে প্রতিবেশী দেশ ভারত এবার সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছে। তৈরি পোশাক পণ্যের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে ভারতে ওভেন পণ্যই গেছে সবচেয়ে বেশি। । ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ভারতে বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি বাবদ যে আয় হয়েছে, তাঁর এক-তৃতীয়াংশই এসেছে তৈরি পোশাক রপ্তানি খাত থেকে। সম্প্রতি রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) এক বিশ্লেষণে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

ইপিবির তথ্য অনুযায়ী, সর্বশেষ ২০১৭-১৮ অর্থবছরে দেশটিতে টি-শার্ট, ট্রাউজার ও শার্ট রপ্তানি বাবদ আয় সবচেয়ে বেশি বেড়েছে। দেশে রপ্তানি বাবদ মোট আয়ের পরিমাণ ৩ হাজার ৬৬৬ কোটি ৮১ লাখ ৭০ হাজার ডলার। এর মধ্যে ভারতে পণ্য রপ্তানি বাবদ বাংলাদেশের আয় হয়েছে প্রায় ৮৭ কোটি ৩২ লাখ ৭০ হাজার ডলার। এছাড়া, গত অর্থবছরে দেশের মোট রপ্তানি আয়ে ভারতের অংশ ছিল ১ দশমিক ৯৩ শতাংশ। এ আয়ে ভারতের অংশ বেড়েছে প্রায় ২.৩৮ শতাংশ।

ভারতে নারী ও পুরুষের ব্যবহারযোগ্য ট্রাউজার রপ্তানি বাবদ আয় হয়েছে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ১১ কোটি ৮৭ লাখ ৬৩ হাজার ৮৯০ ডলার। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে একই পণ্য রপ্তানি থেকে আয় হয় ৫ কোটি ৫৯ লাখ ৯৭ হাজার ৯৩৬ ডলার। এ হিসাবে শুধু পুরুষ ও নারীদের ওভেন ট্রাউজার রপ্তানি বাবদ ভারত থেকে আয় বেড়েছে ১১২ শতাংশের বেশি।

পুরুষদের ব্যবহূত ওভেন শার্ট রফতানি বাবদ গত অর্থবছরে ভারত থেকে আয় হয়েছে প্রায় ৪ কোটি ৭৪ লাখ ৩৬ হাজার ১৪৮ ডলার। ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে একই পণ্য রফতানি বাবদ ভারত থেকে আয় হয়েছিল ১ কোটি ৬৭ লাখ ৪৬ হাজার ৯২৮ ডলার। এ হিসাবে পুরুষের ওভেন শার্ট ভারতে রফতানি বাবদ আয় বেড়েছে ১৮৩ শতাংশেরও বেশি।

টি-শার্ট রপ্তানি বাবদ ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে বাংলাদেশের আয় দাঁড়ায় ২ কোটি ৮৮ লাখ ১৭ হাজার ৪৯০ ডলার। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে এ খাত থেকে আয় হয়েছিল ১ কোটি ৪১ লাখ ৩৪ হাজার ৯৩৫ ডলার। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে ভারতে টি-শার্ট রপ্তানি বাবদ আয় বেড়েছে প্রায় ১০৩ শতাংশ।

খবরটি শেয়ার করুন..








© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com

Desing & Developed BY W3Space.net