সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:৩৫ অপরাহ্ন



চুনারুঘাটে সাব-রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে ঘুষ-দুর্নীতির অভিযোগ দুদকের তদন্ত শুরু, বেরিয়ে আসছে অজানা কাহিনী

চুনারুঘাটে সাব-রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে ঘুষ-দুর্নীতির অভিযোগ দুদকের তদন্ত শুরু, বেরিয়ে আসছে অজানা কাহিনী



স্টাফ রিপোর্টার ঃ চুনারুঘাট সাব-রেজিস্ট্রার মোঃ আবু বকর খাইরুজ্জামানের বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তদন্ত শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। গত বুধবার সরজমিনে তদন্তে যান দুর্নীতি দমন কমিশন হবিগঞ্জের উপ-পরিচালক মলয় কুমার সাহা। তদন্তে বেরিয়ে আসে সাব-রেজিষ্ট্রার খাইরুজামানের অজানা অনেক তথ্য। সূত্রে জানায়, আবু বকর মোঃ খাইরুজ্জামান চুনারুঘাটে সাব-রেজিষ্ট্রার হিসাবে যোগদানের পরই অফিসে অলিখিত নানা নিয়ম চালু করেন। মেতে উঠেন দুর্নীতির হোলিখেলায়। তার মধ্যে জমির শ্রেণী পরিবর্তন করে কম মুল্য দেখিয়ে জমি রেজিষ্ট্রির মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি, টাকা ছাড়া দলিল রেজিষ্ট্রি না করা, শ্রেণী ঠিক রেখে মুল্য কম দেখিয়ে রাজস্ব ফাঁকি, দলিল দাখিলের জন্য টাকা নেওয়া, হেবা এবং হেবা এওয়াজ দলিলে অতিরিক্ত টাকা নেওয়া, বাটোয়ারা দলিলে টাকা আদায়, নামজারি ছাড়াই তৈরী দলিল রেজিষ্ট্রি করা, ভূয়া দাতা তৈরী করে দলিল রেজিষ্ট্রির চেষ্ঠাসহ নানা অনিয়ম আর দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। আর এসব অনিয়মের মাধ্যমেই তিনি কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। অল্প দিনেই আঙুল ফুলে কলাগাছে পরিনত হচ্ছেন। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে উপজেলার সাধারণ মানুষ। এছাড়া দলিল লেখকদের মধ্যে গ্র“পিং তৈরী করে স্বার্থ হাসিল, ক্রেতা বিক্রেতার সাথে অশোভন আচরণ করা এবং এজলাসে না বসে দলিল রেজিষ্ট্রি করার অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তার এমন অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে ইতিপূর্বে উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নেতৃবৃন্দ উপজেলা আইনশৃংখলা কমিটির সভা ছাড়াও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ করেন। মোঃ আবু বকর খাইরুজ্জামান চুনারুঘাটে সাব-রেজিষ্ট্রার হিসাবে দুই বছরের বেশি সময় চাকুরীর সুবাদে কোটি কোটি টাকার গাড়ি-বাড়ি ও সম্পদ অর্জন করেছেন। দুদকের উপ-পরিচালক মলয় কুমার সাহা তদন্তের স্বাথে এখনই কথা বলতে পারছেন না। প্রকাশ, সাব-রেজিস্ট্রার আবু বকর মোঃ খাইরুজ্জামান সাতক্ষীরায় চাকুরিকালীন সময়ে নানা দুর্নীতির কারণে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছিলেন বলে সূত্রে জানায়। পরবর্তীতে তার বরখাস্ত স্থগিত করা হলেও বেতন ভাতাদি প্রদান এখনও বন্ধ রয়েছে। এর আগেও জাতীয় দৈনিক যুগান্তরসহ বিভিন্ন পত্রিকায় অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রকাশিত হয়েছিল। তদন্তে ধামাচাপা দিয়ে সে যাত্রায় বেচে যান।

খবরটি শেয়ার করুন..








© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com
Desing & Developed BY W3Space.net
Veritabanına bağlantı sağlanamadı