রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮, ০৯:৫৪ পূর্বাহ্ন



এবার যৌন হেনস্তা নিয়ে মুখোমুখি তনুশ্রী-রাখি

এবার যৌন হেনস্তা নিয়ে মুখোমুখি তনুশ্রী-রাখি



চলতি বছরের এপ্রিল মাসের ঘটনা! বলিউডের কাস্টিং কাউচ নিয়ে মুখ খুলেছিলেন রাখি সাওয়ান্ত! বক্তব্যের কিছুটা ছিল প্রথামাফিকই- যৌন দুর্নীতি পৃথিবীর সব দেশে সব ক্ষেত্রেই রয়েছে, বলিউডও তার ব্যতিক্রম নয়! কিন্তু তার পরেই স্বভাবমাফিক একটি তথাকথিত বিস্ফোরক কথা বলতে ছাড়েননি তিনি!

দাবি করেছিলেন রাখি- তিনি নিজেও কাস্টিং কাউচের শিকার হয়েছেন! কিন্তু প্রতিভা ছিল বলে একবারের বেশি সুযোগ দিতে হয়নি!

তো, যিনি নিজের মুখেই এই সুযোগ দেওয়ার কথাটা স্বীকার করে নিয়েছেন, তিনি এ বার নানা পটেকর সম্পর্কে তনুশ্রী দত্তার বক্তব্য নিয়ে কিছু বিচিত্র দাবি তুলেছেন! যার সারমর্ম- তনুশ্রী ডাহা মিথ্যে বলছেন!

“আমি দুপুরে বিশ্রাম নিচ্ছিলাম বাড়িতে। হঠাত্‍ আমার কাছে গণেশ আচার্যর ফোন এল! কোরিওগ্রাফার জানালেন আমায় এখনই স্টুডিওয় চলে আসতে, একটা গানের দৃশ্য শুট করতে হবে! তার পরে ফোনে আমার সঙ্গে কথা বললেন নানা! জানালেন- তুমি এখনই চলে এসো, না হলে প্রযোজক আত্মহত্যা করবে!

ও অনেক টাকা লগ্নি করেছে ছবির পিছনে, লোকসান হতে দেওয়া যায় না! শুনে স্টুডিওয় গিয়ে দেখলাম, তনুশ্রী বায়নাক্কা জুড়ে নিজেকে বন্ধ করে রেখেছে মেক-আপ ভ্যানের ভিতরে! ড্রাগের নেশায় বুঁদ ছিল ও, অন্যের নামে কুত্‍সা রটিয়ে এসির হাওয়া খেয়ে ঘুমোচ্ছিল”, দাবি রাখির!

কথা হল, এই রাখিই কাস্টিং কাউচ নিয়ে এপ্রিল মাসের বিবৃতিতে বলেছিলেন- মেয়েদের না বলাটা শিখতে হবে, কেউ সুযোগ নিতে চাইলে তার প্রতিবাদ করতে হবে! এখন তনুশ্রী তো সেটাই করছেন, কিন্তু রাখিকে কি তাঁর প্রতি সহানুভূতি সম্পন্ন বলে মনে হচ্ছে? কী মনে হচ্ছে তাঁর এই বিবৃতি থেকে?

খবরটি শেয়ার করুন..








© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com
Desing & Developed BY W3Space.net