শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ১২:৫৪ অপরাহ্ন



ইজ্জত বাঁচাতে কিশোরীর জঙ্গলবাস!

ইজ্জত বাঁচাতে কিশোরীর জঙ্গলবাস!



এমদাদুর রহমান চৌধুরী জিয়া, স্টাফ রির্পোটার : ইজ্জত বাঁচাতে এক কিশোরীর জঙ্গলবাসের খবর পাওয়া গেছে ।
ঘটনাটি ঘটেছে গত রোববার রাতে ।

সে জানায় , ‘ইজ্জত বাঁচাতে আমি পুরো একরাত জঙ্গলে কাটিয়েছি। রাতে পাহাড়ের মধ্যে সাপ, শিয়াল আর বাঘের ভয়ে কেঁদে কেঁদে সারা রাত কাটিয়েছি। ভোরহতেই আমি আবিষ্কার করি আমার বাড়ি থেকে ১ কিলোমিটার দূরে রয়েছি।’ এভাবে ধর্ষনকারীর কবল থেকে উদ্বার হওয়া জনৈক কিশোরী(১৮) গতকাল রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার(ওসিসিতে) উপরোক্ত বর্ণনা দিয়ে ইজ্জত লুন্টন চেষ্টাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করে ভুক্তভোগী মেয়েটি। মেয়েটির বাড়ি জুড়ী উপজেলার রতœা
চা বাগানে।

ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার(ওসিসি) কুলাউড়ার প্রোগ্রাম অফিসার আমান উল্ল্যাহ জানান, ভিকটিম সেক্সওয়াল হ্যারাজমেন্টের শিকার হয়েছে। তবে ধর্ষিত না হলেও তার শরীরের কামড়,আছড়, হাত-পায়ে জখম রয়েছে। আমরা মেয়েটির জবানবন্দি লিখিতভাবে নিয়ে সুপারিশ সহকারে জুড়ী থানার ওসি বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগনামা প্রেরন করে দিয়েছি তাৎক্ষনিকভাবে। ভিকমিটের দুলাভাই জুগল ওরাং বলেন, রতœা চা বাগানের মংগাবস্তির বাসিন্দা বান্না উরাং এর বখাটে পুত্র বিনয় উরাং(২২) শুক্রবার(১৯ অক্টোবর) রাত ৭ টার দিকে তার শ্যালীকাকে জোরপূর্বক দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ভয় দেখিয়ে তুলে নিয়ে যায়। এবং রাতে পাহাড়ের নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। এসময় ভিকটিম ধস্তাধস্তি করে দৌড়ে জঙ্গলের ভিতরে প্রবেশ করে তার ইজ্জত রক্ষা করে। পুরো রাত জঙ্গলেই কাটায় আমার বোনটি। ভোর হলে ঘটনাটি মা বাবাকে বললে শনিবার বিকেলে জুড়ী থানায় নির্যাতিতাকে নিয়ে যাই আমরা। পুলিশ অভিযোগ গ্রহন করলেও আজ রবিবার পর্যন্ত তদন্ত না করায় আমরা কুলাউড়া ওয়ান স্টপ সেন্টারে নিয়ে আসি এবং কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে চিকিৎসা করাই। ভিকটিমের প্রতিবেশী বসন্ত উরাং বলেন, ধর্ষন চেষ্টাকারী বিনয় উরাং প্রচুর টাকা পয়সার মালিক। গত ৬ মাস থেকে ভিকটিমকে বিরক্ত করে আসছে। ভিকটিম ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী বিনয়ের ভয়ে পড়ালেখাবাদ দিয়ে দিয়েছে। এখন ভয়ে মা-বাবার ঘর ছেড়ে বোনের বাড়ি সে থাকে। পূজা উপলক্ষে বাপের বাড়িতে আসতেই বিনয়ে কবলে পড়ে সর্বস্ব হারাতে বসেছিলো। মেয়েটি কৌশলে সারারাত জঙ্গলে থেকে ইজ্জত বাঁিচয়েছে । জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম রবিবার রাতে জানান, ভিকটিমের লিখিত অভিযোগ আমরা পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে মামলা রুজু করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এ ব্যাপারে জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম জানান প্রেমের সম্পর্ক থাকা এক ছেলে কিশোরীকে হাত ধরে টান দিয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করা হবে।

খবরটি শেয়ার করুন..








© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com

Desing & Developed BY W3Space.net