শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০১:২৬ অপরাহ্ন



বল এখন সরকারের কোর্টে : ড. কামাল

বল এখন সরকারের কোর্টে : ড. কামাল



সংলাপের মাধ্যমে আমরা দাবি-দাওয়া উত্থাপন করেছি উল্লেখ করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, ‘শান্তিপূর্ণ উপায়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট দাবি আদায় করতে চায়। এমন অবস্থায় কোনো পরিস্থিতি তৈরি হলে দায় ভার সরকারের। কারণ বল এখন সরকারের কোর্টে।’

বুধবার (৭ নভেম্বর) বিকালে রাজধানীর বেইলি রোডের বাসভবনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিতীয় দফা সংলাপ শেষে এ সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়।

আজকের সংলাপে আমরা ৭ দফা দাবি নিয়ে সীমিত পরিসরে আলোচনা অব্যাহত রাখার প্রস্তাব করেছি জানিয়ে কামাল হোসেন বলেন, ‘সারা দেশে হাজার হাজার নেতাকর্মীর নামে যেসব মিথ্যা ও গায়েবি মামলা দেওয়া হয়েছে, সেগুলো প্রত্যাহার ও ভবিষ্যতে আর কোনো গায়েবি হয়রানিমূলক মামলা ও ঐক্যফ্রন্ট নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হবে না বলে প্রধানমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন।’

সংবাদ সম্মেলনে ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘সাত দফা আদায়ের জন্য আমরা আন্দোলনে আছি। আন্দোলনের অংশ হিসেবে কাল রাজশাহী অভিমুখে রোডমার্চ হবে এবং পরের দিন রাজশাহীতে জনসভা হবে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা আমাদের দাবি-দাওয়া নিয়ে সরকারের কাছে গেছি, সরকার বিষয়গুলো বিবেচনা করে দেখবে। যদি না মানে তাহলে আমাদের কর্মসূচি দেওয়া আছে আমরা সেভাবেই আন্দোলন করব।’

মহাসচিব বলেন, ‘আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) রাজশাহী অভিমুখে রোডমার্চ হবে এবং পরেরদিন রাজশাহীতে জনসভা হবে।’

তফসিল ঘোষণার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘তফসিল ঘোষণার বিষয়েও আমাদের কর্মসূচি দেওয়া আছে। আমরা নির্বাচন কমিশন অভিমুখে পদযাত্রা করব।

বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘সরকার যদি জনগণের এই দাবি না মানে তাহলে আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলনে যাব এবং আমাদের দাবি আদায় করব।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সুলতান মোহাম্মদ মনসুরসহ আরও অনেকে।

এর আগে গণভবনে সংলাপ শেষ করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ ড. কামাল হোসেনের বাসায় রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন। বেলা সোয়া ৩টা থেকে ঘণ্টাব্যাপী এই বৈঠক হয়।

দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে ১৪ দলের সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় দফা এ সংলাপে অাওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৪ দলের ১১ জন এবং ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ১১ জন সংলাপে প্রতিনিধিত্ব করেন।

ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলে ছিলেন- ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মাহসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহ‌মদ, জাসদের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণফোরামের মহাসচিব মোস্তফা মহ‌সিন মন্টু, গণফোরামের কার্যকরী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত ‌চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, নাগরিক ঐক্যের উপদেষ্টা এস এম আকরাম, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মা‌লেক রতন, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার কেন্দ্রীয় নেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুর।

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা নেতৃত্বে সংলাপে ১৪ দলীয় জোটের প্রতিনিধিদলে যে ১১ জন ছিলেন- আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ সেলিম, মতিয়া চৌধুরী, ওবায়দুল কাদের, অ্যাডভোকেট আনিসুল হক, অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, স ম রেজাউল করিম, হাসানুল হক ইনু ও রাশেদ খান মেনন।

খবরটি শেয়ার করুন..








© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com

Desing & Developed BY W3Space.net