শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০১:১৮ অপরাহ্ন



‘খালেদা জিয়াকে জোর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে’

‘খালেদা জিয়াকে জোর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে’



বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শুরু না হতেই তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

এটিকে শুধু মনুষ্যত্বহীন কাজই নয়, সরকারের ভয়ঙ্কর চক্রান্ত বলে মন্তব্য করেন তিনি। বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন।

রিজভী বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে। তার চিকিৎসার জন্য আদালতের নির্দেশনা ও মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশ লঙ্ঘন করে সরকার দেশনেত্রীকে ফের কারাগারে পাঠিয়েছে।

তিনি বলেন, তার চিকিৎসা শুরুই হয়নি, কেবল পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। আর সেই মুহূর্তে দেশনেত্রীকে কারাগারে প্রেরণ করা শুধু মনুষ্যত্বহীন কাজই নয়, এটি সরকারের ভয়ঙ্কর চক্রান্ত।

রিজভীর দাবি, খালেদা জিয়ার ডাক্তার ও তার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্য সৈয়দ আতিকুল হকের অধীনে তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন।

আতিকুল হক খালেদা জিয়াকে হাসপাতাল থেকে ছুটির ছাড়পত্র দেননি এবং মেডিকেল বোর্ডের চেয়ারম্যান ডা. জলিলুর রহমান বর্তমানে দেশের বাইরে। এমতাবস্থায় সরকারের নির্দেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী খালেদা জিয়ার ছাড়পত্র দিতে বাধ্য করতে চাপ সৃষ্টি করেছে।

‘চিকিৎসা না দিয়ে কারাগারে পাঠানো বেগম জিয়ার জীবনকে বিপন্ন করার অথবা শারীরিকভাবে চিরতরে পঙ্গু করার চক্রান্ত সরকারের কুৎসা সঞ্চারিত মনের বিকার’-যোগ করেন রিজভী।

বিএনপির এ নেতা বলেন, বেগম জিয়া সুস্থ হোক, বিদ্বেষপ্রবণ সরকার এটি কখনও চায় না। বেগম জিয়াকে রাজনীতি থেকে দূরে রাখতে লাগামছাড়া ক্রোধে এই অবৈধ শাসকগোষ্ঠী এখন তার জীবনকে হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছে।

খবরটি শেয়ার করুন..








© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com

Desing & Developed BY W3Space.net