রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন



মেডিকেল কলেজে ভর্তিকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের হামলা, আহত ৭

মেডিকেল কলেজে ভর্তিকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের হামলা, আহত ৭



মিজানুর রহমান, ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে ডেন্টাল ২০১৮-১৯ সেশনে শিক্ষার্থীদের ভর্তিকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু-গ্রুপের সংর্ঘষে ৭ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।

পরে আহতদের উদ্ধার করে মমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে মমেক ছাত্রলীগ শাখার সভাপতি তুষারের নেতৃত্বে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন আহত ছাত্রলীগকর্মীরা।মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) সকাল ১১ টার দিকে ডেন্টাল সেশনে নতুন শিক্ষার্থীদের ভর্তিতে মমেক ছাত্রলীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিদমের নেতৃত্ব সহায়তা করার সময় এ হামলা চালানো হয় বলে জানা গেছে।এ ঘটনায় তাৎক্ষনিক বিচার দাবি করে মমেক ছাত্রলীগ বিক্ষোভ মিছিল করে।

অন্যদিকে আহত ছাত্রলীগ কর্মী মুনতাসির রাতুল অভিযোগ করে বলেন, আমরা ডেন্টালে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের সহায়তা করছিলাম। এসময় কিছু ছাত্রলীগকর্মীরা আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। তখন তারা রড দিয়ে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে একপর্যায়ে টাইলসের ভাঙা টুকরো দিয়ে মাথায় আঘাত করে মাথা ফাটিয়ে দেয়।ছাত্রলীগ কর্মী অনুপম সাহা বলেন, মমেক হাসপাতালে ডেন্টালে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের ভর্তি কাজে সহায়তা করার সময় ছাত্রলীগ সভাপতি তুষারের নেতৃত্বে তার ক্যাডার বাহিনী হামলা করেছে। এ ঘটনা নতুন নয়। এর আগেও অনেকবার তার নেতৃত্বে সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপর হামলা হয়েছে।

কিন্তু তাদের ব্যাপারে কোন আইনী ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এটা দুঃখজনক।এ বিষয়ে মমেক ছাত্রলীগ সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামস আবরার রিদম লিখিত অভিযোগে জানান, মমেক ছাত্রলীগ সভাপতি তুষার ও তার ক্যাডার বাহিনী গ্রুপ বিভাজন ও আধিপত্য বিস্তার করতে আমার অনুসারীদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে।

এ হামলায় বিডিএস-৫ ব্যাচের শিক্ষার্থী ছাত্রলীগ কর্মী সঞ্জীব সরকার বেনাস, এম -৫৪ ব্যাচের প্রতীক বিশ্বাস, বিডিএস-৭ ব্যাচের শিক্ষার্থী ছাত্রলীগ কর্মী মুনতাসির রাতুল, এম-৫৪ ব্যাচের আশফাক কবির প্রহর, ওমর ফারুক সাগর, রবিউলসহ ৭/৮জন ছাত্রলীগ কর্মী আহত হয়েছেন।তিনি আরও বলেন, এ ঘটনা এই প্রথম নয়। তাদের ক্যাডার বাহিনী দ্বারা প্রতিনিয়তই সাধারণ শিক্ষার্থীসহ ছাত্রলীগ কর্মীরা নির্যতনের শিকার হচ্ছে।

এতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছে ছাত্রলীগের অবস্থান প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। এটা সত্যিই দু:খজনক। এ ব্যাপারে প্রশানসের নির্লিপ্ত ভূ’মিকা সাধারণ ছাত্রলীগের কাছে উদ্বেগের কারন হয়ে দাড়িয়েছে।এ বিষয়ে জানতে মমেক ছাত্রলীগ সভাপতি তুষারকে ফোন করা হলে, তিনি নিজের জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করে বলেন, নিজেদের মধ্যে একটু মনমানিল্য হয়েছে। এটা তেমন কিছু নয়।

খবরটি শেয়ার করুন..








© All rights reserved 2018 somoyersangbad24.com
Desing & Developed BY W3Space.net